রংপুরে হরিজনদের দেখার কেউ নেই !

রংপুরে হরিজনদের দেখার কেউ নেই !

মো: মুজিবুর রহমান রংপুর প্রতিনিধি:রংপুর বিভাগের দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জে মানবেতর জীবনযাপন করছেন হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন। এদের যেন দেখার কেউ নেই। বীরগঞ্জ পৌরশহরের নদীর পাড়ে নোংরা পরিবেশে বাস করছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে হরিজন সম্প্রদায়ের ১৪ থেকে ১৫ টি পরিবারের প্রায় ১০০ জন মানুষ। সবাই রাস্তাঘাট, বাড়িঘর, ওয়াশরুম, পরিস্কার করে জীবিকা নির্বাহ করেন। ছবিলাল, দিলিপ সহ ওই সম্প্রদায়ের অনেকে বলেন, আমরা সমাজে অবহেলিত। আমাদের দেখা কেউ নেই। আমরাও এ পৌরসভার ভোটার ও বাসিন্দা। নিজেদের জায়গা জমি নেই। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন ২০২১ সালের পর বাংলাদেশে কোনো গৃহহীন, ভূমিহীন কেউ থাকবে না। অনেকে পাকা ঘর পাচ্ছে, কিন্তু আমরা পাচ্ছি না।স্থানীয় কাউন্সিলর মুক্তার হোসেন জানান, মেথর, সুইপার, ঝাড়ুদার নাম পাল্টিয়ে ১৯৪১ সালে এদের নামকরণ করা হয় হরিজন। বৈষম্য দূর করে তাঁদের মূলধারার জাতিস্বত্ত্বায় নেওয়া হয়। ওদের দাবি, একটি হরিজন পল্লি তৈরি করা হোক। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ আব্দুল কাদের বলেন, হরিজনরা সমাজের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাঁদের পেছনে ফেলে আগানো যাবে না। ওদেরও পুর্নবাসিত করা হবে। বীরগঞ্জ পৌর মেয়র মোঃ মোশারফ হোসেন বাবুল বলেন, সরকার ছিন্নমূল, ভূমিহীন, গৃহহীনদের ঘর দিচ্ছে। ভিক্ষুক পুর্নবাসন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়ন, আদিবাসীদের উন্নয়ন করছে। সেদিক থেকে হরিজনেরা পিছিয়ে রয়েছে। তাঁদের পুনর্বাসন করা অতি জরুরি।

More News...

গজারিয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিধায়ী সংবর্ধনা

পাইকগাছায় মুক্তিযোদ্ধাদের নগদ সহায়তা প্রদান