গুগলের ইহুদি কর্মীরা ফিলিস্তিনকে সমর্থনের দাবি তুলেছে

গুগলের ইহুদি কর্মীরা ফিলিস্তিনকে সমর্থনের দাবি তুলেছে

অনলাইন ডেস্ক : গুগলের একদল ইহুদি কর্মীর দাবি, প্রতিষ্ঠানটি ফিলিস্তিনের সমর্থন করুক এবং ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বা তাদের সহিংসতাকে সমর্থন করে এমন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে থাকা চুক্তি বাতিল করে দিক।

গুগলের এ সব কর্মীরা অভ্যন্তরীণভাবে একটি চিঠি দিয়েছে। যেখানে কমপক্ষে আড়াইশ’টি স্বাক্ষর রয়েছে।

প্রযুক্তি বিষয়ক সংবাদমাধ্যম দ্য ভার্জের বরাত এ খবর দিয়েছে জেরুজালেম পোস্ট। তবে স্বাক্ষরদাতাদের মধ্যে কত জন ইহুদি জানা যায়নি। চিঠিতে স্বাক্ষরদাতাদের ‘গুগলের ইহুদি কর্মী, মিত্র ও বহিরাগত সমর্থক’ বলে উল্লেখ করা হয়।

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর হামলা ও সংঘবদ্ধ সহিংসতার পক্ষে গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুন্দর পিচাই-এর বিবৃতি দেওয়া ‍উচিত নয় বলে ওই চিঠিকে বলা হচ্ছে।

জায়নবাদ-বিরোধী হলেও গুগলকে ইসরায়েলের সমালোচনা অধিকারের পক্ষে থাকার কথা বলা হয় চিঠিতে। তাদের মতে, জায়নবাদ বিরোধিতা মানে সেমেটিক-বিরোধিতা বা এন্টি-সেমেটিজম নয়।

চিঠির লেখকেরা নিজেদের ‘জুইশ ডায়াসপোরা ইন টেক’ হিসেবে উল্লেখ করেন। ইসরায়েলের পক্ষে থাকা গুগলের ‘জুইগলার্স’ নামের দলের বিপরীতে তাদের আত্মপ্রকাশ বলে জানা যায়।

এ দিকে বৃহস্পতিবার ভোরে উত্তর গাজায় হামাসের ঘাঁটি লক্ষ্য করে ১০০ এর বেশি ইসরায়েলি বিমান হামলা চালানো হয়। আর ফিলিস্তিন সশস্ত্র গোষ্ঠী জবাব দেয় রকেট হামলা চালিয়ে।

সাম্প্রতিক সময়ে পূর্ব জেরুজালেমে ইসরায়েলের বসতি স্থাপন এবং আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপরে হামলার আক্রমণে ফিলিস্তিন-ইসরায়েলের মধ্যে উত্তেজনা চরমে উঠে। এই ঘটনার এক সপ্তাহ পর হামলায় যোগ দেয় হামাস।

ইতিমধ্যে গাজায় কমপক্ষে ২২৭ জন লোক প্রাণ হারিয়েছে। তার মধ্যে ১০০ জনের বেশি নারী ও শিশু। ইসরায়েল জানিয়েছে, প্রায় ১৫০ জন গাজার সশস্ত্র গোষ্ঠী এই যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছে। তবে হামাস তাদের যোদ্ধাদের মৃত্যুর কোনো হিসেবে দেয়নি। অন্যদিকে ইসরায়েলে নিহত হয়েছে ১২ জন। তার মধ্যে ২ জন শিশু।

More News...

সাইবার নিরাপত্তা বিল পাস, থাকছে বিনা পরোয়ানায় গ্রেপ্তারের বিধান

বাংলাদেশে সুবিধার চেয়ে ঝুঁকি বেশি