ইরাকে করোনা হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮২

ইরাকে করোনা হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরাকের রাজধানী বাগদাদের একটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮২ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ১২৯ জন। শনিবার রাতে বাগদাদের ইবনে খতিব হাসপাতালে একটি অক্সিজেন ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরণ থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। হাসপাতালটিতে করোনা সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।

ইরাকের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, ইবনে আল-খতিবের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ১১০ জন। ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মু্স্তাফা আল খাদিমি এই ঘটনাকে ‘মর্মান্তিক দুর্ঘটনা’ বলে উল্লেখ করেছেন। এই দুর্ঘটনার কারণ জানতে তিনি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। যে রোগীরা এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হননি, তাদেরকেও সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে অন্য হাসপাতালে। তবে আশঙ্কা করা হচ্ছে, মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

ইরাকের সিভিল ডিফেন্সের প্রধান জানিয়েছেন, হাসপাতালে প্রথম আগুন লাগে পালমোনারি ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে। ওখানে ভর্তি প্রত্যেক রোগীরই শ্বাসকষ্টের সমস্যা ছিল। ১২০ জন ভর্তি ছিলেন ওই বিভাগে। সেখান থেকে ৯০ জনকে উদ্ধার করা গিয়েছে। তবে অনেকেই বেঁচে নেই।

ইরাকের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগ জানিয়েছে, রোববার সকালের দিকেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

এমনিতেই ইরাকের যুদ্ধ ও অবহেলায় চোটে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো একেবারেই ভেঙে পড়েছে। ইরাকের হাসপাতালগুলো করোনাভাইরাস মহামারির ধকল সামলে উঠতে হিমশিম খাচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে যুদ্ধ, অবহেলা এবং দুর্নীতির কারণে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা দুর্বল থাকার কারণে এমনটা হয়েছে। ইরাকে গত ফেব্রুয়ারি থেকে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে চলেছে এবং চলতি সপ্তাহে দশ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, করোনা মহামারির শুরু থেকে এখন পর্যন্ত সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ২৫ হাজার ২৮৮। এর মধ্যে মারা গেছে ১৫ হাজার ২১৭ জন।

More News...

ইরানের হামলায় ইসরায়েলের সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষয়ক্ষতি

ইসরায়েলের একাধিক সামরিক স্থাপনায় রকেট হামলা