এ কেমন শত্রুতা?

এ কেমন শত্রুতা?
অদুধ, ভৈরব প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের দশকাহুনিয়া কৃষিবন নামক এলাকায়  দুই কৃষকের ২০ শতাংশ আবাদী জমির আমন ৪৯ নামক ধানের চারাগাছ উপরে তুলে প্রায় ৩০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
উপজেলার দশকাহুনিয়া গ্রামের মৃত জুলমত আলীর ছেলে কৃষক জীবন মিয়া (৩৫) ও মৃত রুপালি মিয়ার ছেলে কৃষক জহির মিয়া (৩৬) অভিযোগ করে বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গত ১০ সেপ্টেম্বর রোববার ভোরে তাদের চাচা পাশ্ববর্তী বাজিতপুর উপজেলার পশ্চিম পিরিজপুর গ্রামের মৃত মনসুর আলীর ছেলে আব্দুস সাত্তার (৬৫), চাচাতো ভাই জাকির হোসেন (৩০), সারোয়ার হোসেন (২৮) ও আবুল হোসেন (২৬) সহ একই গ্রামের আব্দুল মোতালিবের ছেলে মিজানুর রহমান (৪৫) দলবল নিয়ে দশকাহুনিয়া কৃষিবনে তাদের দখলীয় পৈত্রিক সম্পত্তিতে প্রবেশ করে তাদের রোপিত আমন ৪৯ জাতের ধানের চারাগাছ উপরে তুলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে। এতে তাদের ২০ শতাংশ জমির প্রায় ৩০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা দেখে এলাকাবাসী বলাবলি করছে এ কেমন শত্রুতা?
এঘটনায় ওইদিন বিকালে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক জহির মিয়া বাদী হয়ে কুলিয়ারচর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত থানা পুলিশ কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় ক্ষতিগ্রস্তরা হতাশায় ভোগছেন বলে জানান তারা।
এব্যাপারে অভিযুক্ত জাকির হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই জমি থেকে ধানের চারাগাছ উপরে তুলে নষ্ট করেননি দাবী করে বলেন, ওই জায়গা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। ওই জায়গায় জীবন মিয়া ও জহির মিয়ারা আমাদের না জানিয়ে ধানের চারাগাছ লাগিয়েছেন।
এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিটের দ্বায়িত্বরত অফিসার এসআই আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিভিন্ন সমস্যা থাকায় ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়নি। তবে বুধবার ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

More News...

বিড়ির শুল্ক ও অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারের দাবিতে রংপুরে জনসভা

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন