একাদশের ভর্তিযুদ্ধ শুরু ১০ আগস্ট, ক্লাস শুরু ৮ অক্টোবর

একাদশের ভর্তিযুদ্ধ শুরু ১০ আগস্ট, ক্লাস শুরু ৮ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক : ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ। নীতিমালা অনুযায়ী আগামী ১০ আগস্ট থেকে অনলাইনে ভর্তি আবেদন শুরু হবে। তিন ধাপে ভর্তি আবেদন শেষ হবে ২১ সেপ্টেম্বর। ভর্তি কার্যক্রম চলবে ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।

রোববার (৬ আগস্ট) বিকেলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খানের সই করা নীতিমালা প্রকাশ করা হয়।

নীতিমালা অনুযায়ী, আগামী ১০ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণির অনলাইনে ভর্তি আবেদন শুরু হবে। তিন ধাপে নেওয়া হবে আবেদন। প্রথম ধাপে ২০ আগস্ট পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। সর্বশেষ তৃতীয় ধাপে ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন করার সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে কলেজে ভর্তি শুরু হয়ে চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।

এর মধ্যে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ৬ সেপ্টেম্বর জন্মাষ্টমী এবং ২৮ সেপ্টেম্বর ঈদে মিলাদুন্নবীর জন্য অনলাইন সার্ভিস ও কল সেন্টার বন্ধ থাকবে। এর আগে গত সোমবার (৩১ জুলাই) কলেজে ভর্তির নীতিমালা চূড়ান্তকরণ সভায় এই নীতিমালার অনুমোদন দেওয়া হয়।

 

নীতিমালায় গত বছরের ন্যায় এবারও আবেদন ফি ১৫০ টাকা করা হয়েছে। পাশাপাশি রেজিস্ট্রেশন ফি ৩৩৫ টাকা করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা শুধু অনলাইনে আবেদন করতে পারবে। যেভাবে আবেদন করা যাবে

http://xiclassadmission.gov.bd সার্ভারটি ১০ আগস্ট ওপেন করা হবে। আবেদন করার আগে শিক্ষার্থীদের আবেদন ফি জমা দিতে হবে। সেই ফি কোনো ব্যাংকে না গিয়েও বিকাশের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। তারপর পছন্দের কলেজ বাছাই করে অনলাইনে সাবমিট করতে হবে। শিক্ষার্থীরা শুধু অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০ টাকা আবেদন ফি জমা সাপেক্ষে একজন শিক্ষার্থী সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ দশটি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের জন্য পছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করতে পারবে। একজন শিক্ষার্থী যতগুলো কলেজে আবেদন করবে তার মধ্য থেকে শিক্ষার্থীর মেধা, কোটা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করা হবে।

বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, প্রথম ধাপের আবেদন গ্রহণ করা হবে ১০ থেকে ২০ আগস্ট পর্যন্ত। ৩১ আগস্ট পুনর্নিরীক্ষণের আবেদন করে ফল বদলানো শিক্ষার্থীদের আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে। ৫ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ করা হতে পারে। ৭ থেকে ১০ সেপ্টেম্বর নির্বাচন নিশ্চয়নের সুযোগ পাবে প্রথম ধাপে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা। ১২ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ধাপের আবেদন নিয়ে ফল প্রকাশ করা হতে পারে ১৬ সেপ্টেম্বর। প্রথম মাইগ্রেশন ফল প্রকাশ করা হবে ১৬ সেপ্টেম্বর। ১৭ ও ১৮ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিতরা নির্বাচন নিশ্চয়নের সুযোগ পাবে। আর ২০ ও ২১ সেপ্টেম্বর তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন নিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর ফল প্রকাশ করা হবে।

২৪ ও ২৫ সেপ্টেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচন নিশ্চয়ন চলবে। আর ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের ভর্তি চলবে। ক্লাস শুরু হবে ৮ অক্টোবর।এবারও প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে মাইগ্রেশনের সুযোগ থাকছে। এবার ভর্তি ফি সর্বোচ্চ সাড়ে ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

গত শুক্রবার (২৮ জুলাই) এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। এতে ১১টি শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ৪১ হাজার ৪৫০ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১৬ লাখ ৪১ হাজার ১৪০ জন। উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা এখন একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির চেষ্টা করবে। প্রসঙ্গত, একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে কোনো বাছাই পরীক্ষা হয় না। এসএসসি ও সমমানের ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়।

 

More News...

ইরানের হামলায় ইসরায়েলের সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষয়ক্ষতি

কল ধরলেই তথ্য হ্যাক, বিষয়টি সঠিক নয়