টাঙ্গাইলে আদম ব্যাপারীর খপ্পরে পড়ে ১৭ পরিবার দিশেহারা

টাঙ্গাইলে আদম ব্যাপারীর খপ্পরে পড়ে ১৭ পরিবার দিশেহারা
মোঃ আনিসুর রহমান শেলী, টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল ও কালিহাতী উপজেলার ১৭ ব্যক্তি  কালিহাতী পৌরসভার সাতুটিয়া গ্রামের আদম ব্যাপারী সেলিমের খপ্পরে পড়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বৃহস্পতিবার ওই ব্যক্তিরা সেলিমের বাড়ি ঘেরাও করলে বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়।এবিষয়ে বিভিন্ন জায়গার ধরনা দিয়েও কোন সুফল পাচ্ছেনা তারা।
ভুক্তভোগীরা জানান,কালিহাতী পৌরসভার সাতুটিয়া গ্রামের আদম ব্যাপারী সেলিম ঘাটাইল উপজেলার কইটোলা নয়া পাড়া গ্রামের মোশারফ হোসেনর ছেলে রিফাতকে তুরস্ক পাঠানো কথা বলে ২ লাখ,কাশতলা দক্ষিন পাড়ার মো.হুমায়ুনের ছেলে লিমনকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৬০ হাজার,কাশতলা নয়া পাড়ার শহিদুল ইসলামের ছেলে আশিককে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৭৫ হাজার,গোসাইবাড়ি গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে জামাল হোসেনকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৬ লাখ,গবিন্দ পাড়ার আ. আলীর ছেলে আ.মজিদকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৬ লাখ,সংগ্রামপুর গ্রামের নায়েব আলী তালুকদারের ছেলে হাবিবুর রহমান তালুকদারকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৭০ হাজার,কাশতলা দক্ষিন পাড়ার মতিউর রহমানের ছেলে হাবিবুর রহমানকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৮০ হাজার,কাশতলা গ্রামের শাকিমুদ্দিনের ছেলে রোকনকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা,কালিহাতী উপজেলার আমজানি গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের ছেলে সাব্বিরকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৩ লাখ ৭০ হাজার,একই গ্রামের আ.রহিমের ছেলে আজিজুলকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৮৫ হাজার,কাশতলা নয়া পাড়ার আ.খালেকের ছেলে মমিনুরকে তুরস্ক পাঠানোর কথা বলে ৬০হাজার,পাকুটিয়া গ্রামের আ.আজিজের ছেলে রাব্বিকে তুরস্ক পাঠানোর কথা বলে ২লাখ, গোসাইবাড়ির মৃত মুর্তোজ আলীর ছেলে উজ্জল হোসেনকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৭৭ হাজার,গোসাইবাড়ির উজ্জল হোসেনের ছেলে রাব্বিকে কুয়েত পাঠানোর কথা বলে ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।এদের মধ্যে যারা কুয়েত যাওয়ার জন্য টাকা দিয়েছে তাদের ১৭ জনকে কুয়েত পাঠানোর জন্য বিমান বন্দরে নিয়ে গিয়ে তাদের আর পাঠাতে পারেনি।পরবর্তীতে তাদের টাকা ফেরত দেয়ার আশ্বস দেয় আদম ব্যাপারী সেলিম।তার পর থেকে সেলিম পলাতক রয়েছে।এদের মধ্যে প্রায় সবাই চড়াসুদে টাকা এনে সেলিম দালালকে দিয়েছে। ওই টাকার সুদ পরিশোধ করতে নি:স্ব হয়ে পড়েছে তারা।করছে মানবেতর জীবন যাপন।
এবিষয়টি নিয়ে কালিহাতী পৌরসভায় অভিযোগ করেও কোন সুফল পায়নি ভুক্তভোগীরা।উপায়ান্তর না পেয়ে বৃহস্পতিবার ওই সব প্রবাস যাত্রীরা কালিহাতী পৌসভার সাতুটিয়া সেলিমের বাড়িতে গেলে সেলিমের বউ বাচ্চারা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।
আদম ব্যাপারী সেলেমের পার্টনার চান মিয়া জানান,আমি প্রবাস যাত্রীদের সাথে আছি,কোম্পানি আমাদের টাকা মেরে পালিয়ে গেছে।আমরা যাত্রীদের টাকা ফেরত দেব।

More News...

কার্ডিওলজিস্ট হওয়ার ইচ্ছে মেডিকেলে প্রথম হওয়া সর্বার

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৪৭.৮৩ শতাংশ