দাউদকান্দিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা আ.লীগের সভাপতির গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় থানায় মামলা

দাউদকান্দিতে কুমিল্লা উত্তর জেলা আ.লীগের সভাপতির গাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় থানায় মামলা

তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধি : কুমিল্লা উত্তর জেলা আ. লীগের সভাপতি ম. রুহুল আমিনের গাড়ি ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।গত শনিবার (২৮ জানুয়ারি) বিকালে দাউদকান্দি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের সম্ভুরদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় রবিবার (২৯ জানুয়ারি) দাউদকান্দি মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি সোহেল রানা বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২০/২৫ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, জেলা আ.লীগের সদস্য ও দাউদকান্দি উপজেলা আ. লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির নেওয়াজ সোহেলের বাড়ি রফারদিয়া গ্রামে গত শনিবার দুপুরে একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আ. লীগের সভাপতি ম. রুহুল আমীন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন জেলা আ. লীগের সহ-সভাপতি ড. আব্দুল মান্নান জয়, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক বাসুদেব ঘোষ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী, উপজেলা আ. লীগ সভাপতি আহসান হাবীব চৌধুরী লীল মিয়া,সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন শিকদারসহ জেলা ও উপজেলার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সেখান থেকে ফেরার পথে সম্ভুরদিয়া মোড়ে দৌলতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মইন চৌধুরীর লোকজন গাড়ি বহরে হামলা চালায়। গত ২৯ ডিসেম্বর দৌলতপুর ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মইন চৌধুরী। ওই নির্বাচনে নৌকার পক্ষে প্রচারণায় জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি বশিরুল আলম মিয়াজী বিদ্রোহী প্রার্থী ও তার লোকজনকে নিয়ে অশ্লীল ভাষায় বক্তব্য দিয়েছিলেন।

এমন অভিযোগে শনিবার মইন চেয়ারম্যানের ভাতিজাসহ তার লোকজন জেলা আ.লীগ সভাপতি ম. রুহুল আমীনের গাড়িতে হামলা ও ভাংচুর এবং বশিরুল আলম মিয়াজীকে খোঁজ করে না পেয়ে গাড়ি লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে ৷ এতে গাড়ির পিছনের পুরো কাঁচ ভেঙে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।উত্তর

জেলা আ.লীগের সভাপতি ম. রুহুল আমীন বলেন, আমার গাড়িতে দাউদকান্দি উপজেলা আ. লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার গাড়িতে হামলা করে।যতটুকু জেনেছি বশির মিয়াজীকে খোঁজ করে হামলাকারীরা স্বতন্ত্র থেকে পাশ করা চেয়ারম্যানের লোকজন।ঘটনার সংবাদ পেয়েই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেছেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ও তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো.পারভেজ হোসেন সরকার, তিতাস উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহসীন ভূইয়া ও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও তিতাস উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকির।

দাউদকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর ভূঞা বলেন, এ ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।

More News...

বিড়ির শুল্ক ও অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারের দাবিতে রংপুরে জনসভা

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন