ট্যাটু নিয়ে আলভেসের দু’রকম জবানী, কারাগার পরিবর্তন

ট্যাটু নিয়ে আলভেসের দু’রকম জবানী, কারাগার পরিবর্তন

স্পোর্টস ডেস্ক : কাতালুনিয়ায় যৌন নিপীড়নের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া দানি আলভেস বিচারকের কাছে বিতর্কিত বিবৃতি দিয়েছেন। বিচারকের কাছে অভিযোগ দায়ের করা তরুণী বলেছেন, আলভেসের তলপেটের ডানপাশে একটি ট্যাটু আছে।
এল মুন্ডোর বরাত দিয়ে স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে আদালতকে বিবৃতিতে আলভেস দু’রকম কথা বলেছেন। প্রথমে তিনি বলেছেন, তার তলপেটে একটি ট্যাটু আছে এটা ঠিক। তবে তার ওপর নাইট ক্লাবের বাথরুমে ওই নারী প্রথম ঝাপিয়ে পড়েছিলেন।
ওই উত্তর বিচারক নাকোচ করে দিলে ভিন্ন উত্তর দেন দানি। স্বীকার করেন যে, ওই নারী তার ওপর ঝাপিয়ে পড়েননি। তিনি কাপড় তুলে তার ট্যাটুও দেখান এবং বলেন যে, ওই তরুণীর সঙ্গে যা কিছু হয়েছে তা সম্মতিতে।
গত ৩১ ডিসেম্বর ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার দানি আলভেসের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আনেন এক তরুণী। ওই ঘটনায় থানায় জবানবন্দি দিতে আসলে গ্রেফতার হন তিনি। পরে বিচারককে ওই নারী বলেছেন, নাইট ক্লাবের ভিআইপি বাথরুমে আলভেস তাকে ধর্ষণ করেছেন।
ওদিকে নিরাপত্তাজনিত কারণে দানি আলভেসকে অন্য কারাগারে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গত শুক্রবার থেকে তিনি ‘ব্রিয়ান্স ওয়ান’ কারাগারে ছিলেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার তাকে ‘ব্রিয়ান্স টু’তে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তার কথা বললেও সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, ব্রিয়ান্স টু’তে থাকাদের অধিকাংশ ‘যৌন কেলেঙ্কারিমূলক’ মামলার আসামি।

ঘটনা আছে আরও। দানি আলভেস ও তার পরিবার মনে করছে, তাদের পক্ষের (আসামীপক্ষ) আইনজীবী মামলাটি ঠিক মতো পরিচালনা করতে পারছেন না। দানির ভাই নেই জানিয়েছেন, আইনজীবী মিরাইদা পুয়েন্টে উইলসন-এর প্রতি তার পরিবার ও দানি অসন্তুষ্ট। সংবাদ মাধ্যমকে নেই বলেছেন, ‘এই পরিস্থিতিতে আমরা একেবারেই ক্ষমতাহীন। আমার মনে হচ্ছে, আইনজীবী বিষয়টি সামলাতে পারছেন না।

More News...

রাইসির প্রতি জাতিসংঘের শ্রদ্ধা অনুষ্ঠান বয়কট যুক্তরাষ্ট্রের!

কোন ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল?