সারাদেশে রাতের এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বেড়ে আবার কমতে পারে

সারাদেশে রাতের এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বেড়ে আবার কমতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক: শনিবার রাতের তাপমাত্রা আরও কমে গিয়ে শৈত্যপ্রবাহের আওতা অনেকটা বেড়ে গেছে। তবে আপাতত দু-একদিন তাপমাত্রা কিছুটা বাড়লেও এরপরই আবার কমার পূর্বাভাস দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিপ্তর। শনিবার (৭ জানুয়ারি) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা একদিন আগে ছিল ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায়ও ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে কিছুটা কমে হয়েছে ১১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার নওগাঁ, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইছিল।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানান, শনিবার সকালে ফরিদপুর, মাদারীপুর, কিশোরগঞ্জ, দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, সাতক্ষীরা ও বরিশাল জেলাসহ রাজশাহী বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু এলাকায় প্রশমিত হতে পারে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে তিনি জানান, সারাদেশে রাতের এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা পার্থক্য কমে যাওয়ার কারণে সারাদেশে মাঝারি থেকে তীব্র শীতের অনুভূতি থাকতে পারে। এসময়ে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারী থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি দেশের কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

আগামী দু-দিন পর তাপমাত্রা কমতে পারে বলেও জানান আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক। আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বলে। আর তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।

More News...

জাতীয় প্রেসক্লাবে বিড়ি শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

কৃষকদের টাকা দিলে ফেরত দেয়, কোটিপতিরা দেয় না’