জায়েদ অনেকের সংসার ভেঙেছে : সানী

জায়েদ অনেকের সংসার ভেঙেছে : সানী

বিনোদন প্রতিবেদক : গেল শুক্রবার খল অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে দ্বন্দ্বে জড়ান চিত্রনায়ক ওমর সানী ও জায়েদ খান। অনুষ্ঠানে পিস্তল বের করে সানীকে গুলি করার হুম‌কি দেন জায়েদ। যদিও আগে অনুষ্ঠানে ঢুকে জায়েদকে দেখতে পেলে তাকে চড় মারেন সানী। এ সময় জায়েদের উদ্দেশে সানী বলেন, ‘তোরে না নিষেধ করছি, আমার বউরে (চিত্রনায়িকা মৌসুমী) ডিস্টার্ব করবি না।’ জবাবে কোমর থেকে তাৎক্ষণিক পিস্তল বের করেন জায়েদ। বলেন, ‘গুলি করে দেব।’

আসলে আগে এমন কী ঘটেছিল? যে কারণে বিয়ের অনুষ্ঠানে এসে দ্বন্দ্বে জড়ান এই দুই চিত্রনায়ক। দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে ওমর সানী বলেন, ‘সে (জায়েদ খান) দীর্ঘদিন ধরে আমার বউকে ডিস্টার্ব করছে। আমাদের বিভিন্ন কাজেও বাগড়া দিয়ে আসছে। আমাদের অনেক কাজই সে বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু তারপরও আমি চুপ ছিলাম, মাটির দিকে তাকিয়ে নিজেকে কন্ট্রোল করার চেষ্টা করেছি। আমার কাছে অনেক প্রমাণ আছে।’

কী এমন প্রমাণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যা আছে তা আমি সময় মতোই দেখাবো।’

এত অতিথিদের মাঝে আপনি তাকে আগে চড় মেরেছেন, বিষয়টি কেমন না… ‘আমি তাকে গিয়ে চড় মারছি। আর এটা তো সবাই জানে, সে একজন পিস্তলধারী। তার কাছে লাইসেন্স করা পিস্তল আছে। সে কোমড়ে হাত দিয়ে আমাকে বলল, “পিস্তল দেখছোস, গুলি কইরা মাইরা ফেলামু।” এটা তো বিশ্বাস আমাকে করতেই হবে। একজনের বিয়ের অনুষ্ঠানে তো আর অশোভনীয় আচরণ করা যায় না। তাই আমি আর কিছুই বলিনি। ঘটনাটি সেকেন্ডের মধ্যে ঘটেছে আর সেকেন্ডের মধ্যেই সব আউট হয়ে গেছে। তাই বিষয়টি নিয়ে অনুষ্ঠানে তেমন কিছুই হয়নি,’ বললেন সানী।

আপনি কি আইনি কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার কথা ভাবছেন? উত্তরে সানী বলেন, ‘আমি এই মুহুর্তে আইনি কোনো পদক্ষেপের কথা ভাবছি না। বিষয়টি নিয়ে আমি আমার মুরব্বিদের (চলচ্চিত্র অঙ্গনের) সঙ্গে কথা বলবো, দেখি তারা কি করে। আমি চলচ্চিত্রের মানুষদেরকেই প্রথম পরিবার মনে করি। তাই প্রথমে তাদের কাছে বিচার চাইব, এরপর…।’

জায়েদ সম্পর্কে সানী বলেন, ‘ওর নামে বহু অভিযোগ আছে। সে অনেক মানুষের সংসার ধ্বংস করেছে। তার পিস্তল বের করে চলাচল করা, কত মেয়েদের… এমন বহু অভিযোগ আছে। এটা কি নতুন কিছু তার জন্য? জায়েদ খানের এই ধরনের অভিযোগের গাছের বয়স তো প্রায় ৪ হাজার বছর!’

উল্লেখ্য, গেল শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে খল অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়েতে এ ঘটনা ঘটে। ডিপজলসহ সিনেমার বেশ ক’জন শিল্পীই এ ঘটনাটি দেখতে পান।

তবে বিষয়টি নিয়ে গতকাল জায়েদ খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। ওখানে ডিপজল ভাইসহ আরও অনেকে ছিলেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে দেখতে পারেন। এখনকার বিয়ে বা বড় অনুষ্ঠানে মেটাল ডিটেক্টর রাখা হয়, সেখানে পিস্তল নিয়ে প্রবেশ করার কোনো সুযোগ নেই। আমার নামে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।’

More News...

১৩ বছর পর আবারও ছোট পর্দায় শ্রাবন্তী

বিড়ি শিল্প নিয়ে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলন