ডেল্টার তুলনায় কম মারাত্মক ওমিক্রন: মার্কিন গবেষণা

ডেল্টার তুলনায় কম মারাত্মক ওমিক্রন: মার্কিন গবেষণা

অনলাইন ডেস্ক : ২০১৯ সালে ডিসেম্বরে চীনে প্রথম ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। এরপর পুরো বিশ্বে ছড়িয়েছে ভাইরাসটি। শুধু তাই নয় মিউটেশন হয়ে ভাইরাসটির নতুন নতুন ভ্যারিয়েন্ট পরিস্থিতি আরও জটিল করে তোলে। আলফা, বিটা, গামা, ডেল্টার পর সর্বশেষ ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট এখন সংক্রমণ বিস্তার করছে। তবে এই ভ্যারিয়েন্ট অন্যান্যগুলোর তুলনায় কম মারাত্মক বলে দাবি করছে মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-সিডিসি’র এক গবেষণা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় কম মারাত্মক ওমিক্রন। কারণ ডেল্টার তুলনায় ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি, আইসিইউ’র প্রয়োজন ও মৃত্যু কম লক্ষ্য করা গেছে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সিডিসি’র প্রকাশিত গবেষণায় বলে হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা অতিরিক্ত হলেও পরিস্থিতি আগের তুলনায় কম মারাত্মক। ওমিক্রনে আক্রান্ত হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে ২৯ শতাংশের আইসিইউ’র প্রয়োজন হচ্ছে। যা ডেল্টার তুলনায় কম। শুধু তাই নয়, ডেল্টার তুলনায় এই হার ২৬ শতাংশ কম।

এতে আরও বলা হয়, ওমিক্রন মারাত্মক প্রভাব ফেলতে না পারার অন্যতম কারণ হচ্ছে, ভ্যাকসিন কার্যক্রম। বড় আকারে জনগোষ্ঠী ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন পাওয়ায় এই ভ্যারিয়েন্ট তেমন প্রভাব ফেলতে পারেনি। যার কারণে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি হলেও মৃত্যু কম হচ্ছে।

More News...

জাতীয় প্রেসক্লাবে বিড়ি শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

কৃষকদের টাকা দিলে ফেরত দেয়, কোটিপতিরা দেয় না’