কাউন্সিলর প্রার্থী নূরউদ্দিনের গণসংযোগ গণজোয়ারে পরিণত

কাউন্সিলর প্রার্থী নূরউদ্দিনের গণসংযোগ গণজোয়ারে পরিণত

সম্রাট আকবর : নাসিক নির্বাচনী মাঠে ৪নং ওয়ার্ডে ৪ জন কাউন্সিলর প্রার্থী থাকলেও আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নূরউদ্দিন মিয়া । আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সিদ্ধিরগঞ্জের ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী, দূর্দিনের নীরিহ, অসহায়, গরীব মানুষের প্রিয়মূখ নুর উদ্দিন মিয়ার গণজোয়ার উঠেছে। এলাকায় জনসাধারণের মুখে মুখে শুধু তার কথা শুনা যাচ্ছে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে হাটে-বাজারে শুধু “ঠেলাগাড়ি” মার্কা নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। স্থানীয় জনসাধারণের দাবী, কাউন্সিলর প্রার্থী নূরউদ্দিন একজন সৎ, ন্যায়পরায়ণ, শিক্ষানুরাগী ও ক্লিন ইমেজের প্রার্থী। তার বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণের কোন অভিযোগ নেই। ওয়ার্ড বাসী এবার “ঠেলাগাড়ি ” প্রতীকে তাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখছে। এ ওয়ার্ডে প্রার্থীর ছড়াছড়ি হলেও নূরউদ্দিন এর বিকল্প নেই। ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায় এ ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কাউন্সিলর প্রার্থী নূরউদ্দিন মিয়া ওয়ার্ডবাসীর শিক্ষা বিস্তারসহ নানামূখী উন্নয়ন কর্মকান্ডে কাজ করেছেন এবং বর্তমানেও করে যাচ্ছেন।

নাসিক ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী নূরউদ্দিন মিয়া বলেন, আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সকলের দোয়া নিয়ে প্রচারণার কাজ শুরু করেছি। ওয়ার্ড বাসীর কাছ থেকে বিপুল সাড়া পাচ্ছি। আমি ওয়ার্ড বাসীর কাছে কৃতজ্ঞ। জনগণের কল্যাণে বাকিটা জীবন কাজ করার সুযোগ পেলে নিজেকে ওয়ার্ড বাসীর সেবায় বিলিয়ে দিতে চাই। আর অসমাপ্ত কাজগুলো করতে চাই। ভোট পবিত্র আমানত। কাহারো টাকার বিনিময়ে, ভয়-ভীতি ও প্রলোভনে পড়ে আপনার মূল্যবান ভোটটি নষ্ট করবেন না। আমার জনপ্রিয়তা সহ্য করতে না পেরে কিছু কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচারের চেষ্টা করছে।আগামী ১৬ তারিখ ০৪নং ওয়ার্ডের ভোটাররা “ঠেলাগাড়ি” প্রতীকে ভোট দিয়ে এর সমুচিত জবাব দিবে।

এই ওয়ার্ডের কয়েকজন স্হানীয় বাসিন্দা বলেন নূরউদ্দিন মিয়া কাউন্সিলর না হয়েও দীর্ঘদিন ধরে এলাকার মানুষের উন্নয়নে নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন। এলাকার মানুষের যেকোনো বিপদে আপদে নূরউদ্দিন মিয়া এগিয়ে আসেন। বর্তমান কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার সাধারণ মানুষদের কোন খোঁজ খবর নেয়নি। তাই আগামী নাসিক নির্বাচনে “ঠেলাগাড়ি” প্রতীকে ভোট দিয়ে নূরউদ্দিন মিয়াকে বীরের বেশে এলাকাবাসী কাউন্সিলর হিসেবে বরন করে নিবেন।

গতকাল ৪নং ওয়ার্ডের হাউজিং, ফকির বাড়ি এলাকা থেকে শুরু করে গণসংযোগটি ওয়াবদা বউ বাজার, মনোয়ারা জুট মিল হয়ে আজিবপুর রেললাইন এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। এলকার সাধারণ মানুষদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে গণসংযোগটি গণজোয়ারে পরিণত হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী মটর চালক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান জজ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক হাজী আবদুল আউয়াল, আবদুল হাই মেম্বার, ৪ নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগের সভাপতি কবির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সুমন মাহমুদ,সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলী হোসেন আলেক, আনোয়ার ফকির, মোক্তার হোসেন, কবির হোসেন সহ আরো অনেকে।

More News...

বিড়ির শুল্ক ও অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারের দাবিতে রংপুরে জনসভা

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন