ইভ্যালি মামলা: আগাম জামিন পেলেন মিথিলা ও ফারিয়া

ইভ্যালি মামলা: আগাম জামিন পেলেন মিথিলা ও ফারিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইভ্যালিকাণ্ডে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় হাইকোর্ট থেকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়া। ১৩ ডিসেম্বর, সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. আতোয়ার রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

জামিনের পর মিথিলা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে যে মামলাটি করা হয়েছে, সেটার খুব একটা ভিত্তি নেই। ভিত স্ট্রং না দেখেই কিন্তু আমাকে আজকে জামিন দেয়া হয়েছে। আমার আইনের উপর আস্থা আছে, আশা করছি এসব কারণে শিল্পীরা আর হয়রানির শিকার হবে না। শুধু এখন নয়, ভবিষ্যতেও।’

এ সময় হয়রানিমূলক কর্মকাণ্ড থেকে শিক্ষা পেয়েছেন বলেও জানান মিথিলা। সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এই অসম্ভব হয়রানির ভেতর দিয়ে গিয়ে আমি যেটা শিখলাম, আমাদের আর্টিস্টদের সাপোর্ট করার জন্য সেভাবে আইনজীবী নেই। মিডিয়ার এসব ইস্যু ডিল করার জন্য প্রপার এজেন্সি নেই, আমাদের ম্যানেজার নেই। এগুলো আমাদের ইনডিভ্যিজুয়ালি ডিল করতে হয়। এগুলোর জন্য আমি প্রস্তুত ছিলাম না। আমি একশোর উপর ব্র্যান্ড এনডোর্স করেছি, যেগুলো অনেক বড় বড় ব্র্যান্ড বাংলাদেশের। এই ধরনের একটা হয়রানিমূলক পরিস্থিতির জন্য আমি একেবারেই প্রস্তুত ছিলাম না।’

এর আগে ১২ ডিসেম্বর, রবিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় তাদের আগাম জামিনের আবেদন করা হয়েছিল।

গত ৪ ডিসেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় সাদ স্যাম রহমান নামে ইভ্যালির এক গ্রাহক সঙ্গীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান এবং দুই অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াসহ ৯ জনের নামে মামলা করেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন—গ্রেফতার ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেল, তার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন, আকাশ, আরিফ, তাহের ও মো: আবু তাইশ কায়েস।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, তাহসান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়া ইভ্যালির বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন। তাদের উপস্থিতি এবং তাদের বিভিন্ন প্রমোশনাল কথাবার্তার কারণে আস্থা রেখে বিনিয়োগ করেন সাদ স্যাম রহমান। এসব তারকার কারণে মামলার বাদি প্রতারিত হয়েছেন।

More News...

‘সোনার চর’ হাউসফুল, উচ্ছ্বসিত জায়েদ খান

‘রাজকুমার’র দর্শক সাড়ায় আমি অভিভূত : আরশাদ আদনান