প্রতিশ্রুতির চিঠি পেয়ে ভারতে ১৫ মাসের কৃষক বিক্ষোভ প্রত্যাহার

প্রতিশ্রুতির চিঠি পেয়ে ভারতে ১৫ মাসের কৃষক বিক্ষোভ প্রত্যাহার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের রাজধানী দিল্লির সীমানায় ১৫ মাস ধরে চলা আন্দোলনের ইতি টানলেন কৃষকরা। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠানিকভাবে সরকারি চিঠি আসার পরই তারা আন্দোলন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

এর আগে মোদি সরকারের পক্ষ থেকে কৃষকদের দাবি মেনে পদক্ষেপ গ্রহণের খসড়া প্রস্তাব আসে। প্রতিশ্রুতির ওই চিঠি আসার পর বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসেন কৃষক নেতারা। এ বৈঠকে সহমতের ভিত্তিতে তারা ৩৭৮ দিনের আন্দোলনে আপাতত ইতি টানার সিদ্ধান্ত নেন।

ভারতের কেন্দ্রীয় কৃষি সচিবের পাঠানো চিঠিতে ফসলের নুন্যতম সহায়ক মূল্যে বা এমএসপি-র আইনি গ্যারেন্টি প্রসঙ্গে সরকার প্রস্তাব দিয়েছে। সেইসঙ্গে জানিয়েছে, সব চাষিদের জন্য এমএসপি নিশ্চিত করার পথ খুঁজতে কমিটি তৈরি করা হবে। সেই কমিটিতে কৃষক মোর্চার প্রতিনিধিরাও থাকবেন।

ভারতের কেন্দ্র চিঠিতে জানিয়েছে, আন্দোলনের সময় কৃষকদের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহারে বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, হরিয়ানা, মধ্যপ্রদেশ, হিমাচল প্রদেশ।

কৃষকদের ওপর ভারতের কেন্দ্রীয় সংস্থারও সব মামলা প্রত্যাহার করে নেয়া হবে। অন্য রাজ্যগুলোকে এ নিয়ে অনুরোধ জানানো হবে।

চিঠিতে আশ্বাস দেয়া হয়েছে, কৃষকদের আপত্তির বিষয়গুলো নিয়ে সবার সঙ্গে, মোর্চার সঙ্গে আলোচনা হবে। তার আগে ওই বিল সংসদে পেশ হবে না। ফসলের খড় পোড়ানো বন্ধ করার আইনে কৃষকদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অপরাধের ধারা আগেই প্রত্যাহার করা হয়েছে।

চিঠিতে কেন্দ্র নিজে আন্দোলনে মৃত কৃষকদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আশ্বাস না দিলেও জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা আগেই ক্ষতিপূরণে সম্মতি জানিয়েছে।

আন্দোলন প্রত্যাহার ঘোষণার পাশাপাশি শনিবার সকাল ৯টায় সিঙ্ঘু ও টিকরি সীমানায় একটি বিজয় মিছিল বের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কৃষকরা। ওই দিন থেকে তাবু সরানোও শুরু করবেন তারা। ১৩ ডিসেম্বর পাঞ্জাবের কৃষকরা অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে প্রার্থনা করবেন বলে জানা গেছে।

More News...

কোন ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল?

৫০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দিয়ে মুক্ত বাংলাদেশি জাহাজ