নারীদের কাজ শুধু জন্ম দেওয়া মন্ত্রী হওয়া নয় : তালেবান

নারীদের কাজ শুধু জন্ম দেওয়া মন্ত্রী হওয়া নয় : তালেবান

অনলাইন ডেস্ক : নারীরা মন্ত্রী হতে পারবে না তাদের কাজ শুধু জন্ম দেওয়া। আফগানিস্তানের সংবাদমাধ্যম টিওএলওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটি বলেছেন তালেবানের মুখপাত্র সৈয়দ জেকরুল্লাহ হাশিমি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এই ভিডিও নিয়ে ব্যাপক সমালোচনাও হচ্ছে।

টিওএলও নিউজকে হাশিমি বলেন, নারীরা মন্ত্রী হতে পারে না। এটি এমন বিষয় যেটি আপনি তাঁদের ঘাড়ে চাপিয়ে দিলেন কিন্তু তাঁরা সেটি নিতে পারবে না। নারীদের মন্ত্রিত্ব পাওয়া খুব প্রয়োজনীয় নয়। তাঁদের কাজ হলো জন্ম দেওয়া। যে সব নারী আন্দোলন করছে তাঁরাই আফগানিস্তানের সব নারীর প্রতিনিধিত্ব করছে না।

সাক্ষাৎকারে সাংবাদিক পাল্টা প্রশ্ন করেন, নারীরা সমাজের অর্ধাংশ।

এ নিয়ে তালেবানের মুখপাত্র হাশিমি বলেন, আমরা তাঁদেরকে তেমনভাবে দেখি না। কীভাবে তাঁরা সমাজের অর্ধাংশ। অর্ধেক বলেই এটি ভুল ব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে। অর্ধেক বলতে বোঝাচ্ছে তাঁদেরকে মন্ত্রিসভায় জায়গা দিতে হবে এবং আরও সুযোগ দিতে হবে। গত ২০ বছরে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার অনুগত গণমাধ্যম ও আফগানিস্তানের পুতুল সরকার যা বলেছে নারীদের নিয়ে সেগুলো কি পতিতাবৃত্তি ছাড়া আর কিছু ছিল?”

সাক্ষাৎকারে এই কথার প্রতিবাদ করেন সাংবাদিক। তিনি হাশিমিকে বলেন, আপনি সব নারীকে পতিতা বলতে পারেন না।

এর জবাবে তালেবান মুখপাত্র বলেন, আমি সব নারীদের বোঝাচ্ছি না। দেখুন চারজন নারী রাস্তায় প্রতিবাদ করছে। তাঁরা সব আফগান নারীদের প্রতিনিধিত্ব করছে না। আফগান নারী তাঁরাই যারা আফগানিস্তানের জনগণকে জন্ম দিয়েছে এবং তাঁদেরকে ইসলামের নীতি শেখাচ্ছে।

গত মঙ্গলবার আফগানিস্তানে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ঘোষণা করেছে তালেবান। যেখানে কোনো নারীকে রাখা হয়নি। গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখলের মাধ্যমে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয় দেশটির এক সময়ের বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালেবান।

More News...

তানজিদের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি, বড় রান চট্টগ্রামের

আমরা মাথা উঁচু করে বিশ্ব-দরবারে এগিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী