নিউইয়র্কের ইতিহাসে প্রথম নারী গভর্নর হচ্ছেন ক্যাথি হকুল

নিউইয়র্কের ইতিহাসে প্রথম নারী গভর্নর হচ্ছেন ক্যাথি হকুল

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন ক্যাথি হকুল (৬২)। নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো (৬৩) পদত্যাগ করার পরপরই ক্যাথির নাম উঠে আসে। নিউইয়র্কের ইতিহাসে প্রথম কোনো নারী গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পাবেন ক্যাথি।

যৌন হয়রানির অভিযোগে অপরাধ আইনে তদন্তের মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো পদত্যাগের ঘোষণা দেন। ১৪ দিনের মধ্যে কুমোর পদত্যাগ কার্যকর হবে। এরপরই ক্যাথি তার দায়িত্ব বুঝে নিবেন।

এদিকে, গভর্নর হওয়ার বিষয়ে ক্যাথি বলছেন, নিউইয়র্কের ৫৭তম গভর্নরের দায়িত্ব পালনের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত তিনি। গভর্নর কুমো পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়ে সঠিক কাজটিই করেছেন।

ক্যাথি মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেটিক পার্টির সদস্য ছিলেন। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনেও জয়ী হন। কিন্তু কুমোর মতো তারকা রাজনীতিকের জন্য গর্ভনর হতে পারেননি। কুমোর পদত্যাগের ফলে এবার সেই বাধা কাটল।

যৌন হয়রানির দায়ে ১০ আগস্ট অ্যান্ড্রু কুমো পদত্যাগ করেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ অন্যরাও তাকে সরে দাঁড়াতে চাপ দিয়ে আসছিলেন। এছাড়া আইনগত চাপও ছিল। এর আগে তদন্তে তার বিরুদ্ধে এগারো নারীকে যৌন হয়রানির প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এর আগে পাঁচ মাসের স্বাধীন তদন্তের পর প্রতিবেদন প্রকাশ করেন নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিটিয়া জেমস। এতে বলা হয়, তিনি তার আচরণের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাজ্যের আইন লঙ্ঘন করেছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এক সময়ের প্রতিদ্বন্দ্বী বিবেচনা করা কুমোর আকস্মিক পতনে সবাইকে অবাক করে দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্থ বৃহৎ জনবহুল রাজ্য নিউইয়র্কের গভর্নর হিসেবে ২০১১ সাল থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন ডেমোক্র্যাটদলীয় কুমো।

তবে যে কোনো ধরনের ভুল করার কথা অস্বীকার করেছেন কুমো। তিনি বলেন, নারীদের প্রতি অন্যায় আচরণের পুরো দায় আমি গ্রহণ করছি। মমতা কিংবা রসিকতার ছলে অসচেতনভাবে এমন অন্যায় হতে পারে বলে মনে করেন কুমো।

More News...

রাইসির প্রতি জাতিসংঘের শ্রদ্ধা অনুষ্ঠান বয়কট যুক্তরাষ্ট্রের!

কোন ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল?