জামিন পেলেন একা

জামিন পেলেন একা

আদালত প্রতিবেদক : গৃহকর্মীকে নির্যাতন ও মাদক আইনের দুই মামলায় কারাগারে থাকা ঢাকাই সিনেমার নায়িকা একা মাদক মামলায় জামিন পেয়েছেন। আজ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুল ইসলাম ১ হাজার টাকা মুচলেকায় এ জামিন আদেশ দেন।

এর আগে গত ১ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হাতিরঝিল থানার এসআই (নি.) মো. ফয়সাল একাকে হাজির করে উভয় মামলায় তিন দিন করে ছয় দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড ও জামিনের উভয় আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই রয়েছেন।

মামলায় বলা হয়, গৃহকর্মী হাজেরা বেগম মাসিক ৩ হাজার টাকা বেতনে গত ৩ মাস যাবৎ কাজ করে আসছিলেন। কাজ শেষে গত ৩১ জুলাই বিকেল সাড়ে চারটার দিকে একার কাছে পাওনা বকেয়া বেতনের দুই মাসের ৬ হাজার টাকা চান। তখন একা তাকে বলেন, তোকে দিয়ে আর কাজ করাব না এবং হাজেরা বেগমকে গলা ধাক্কা দিয়ে দেয়।

পাওনা টাকা না দিলে যাবে না জানালে হাজেরা বেগমকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে এবং রান্না ঘর থেকে বটি এনে মাথায় কোপ দেয়। হাজেরা বেগম হাত দিয়ে ঠেকাতে গেলে তার বাম হাত জখম হয়। তখন ভিকটিম চিৎকার দিলে একা তার মুখ চেপে ধরে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।

পুলিশ হাজেরা বেগমকে উদ্ধার করতে গিয়ে একার বাসায় অভিযান চালায়। ওই সময় অভিনেত্রীর বেড রুমের বিছানার ওপর থেকে ৫ পিচ ইয়াবা, ৫০ গ্রাম গাঁজা, ৫৫০ মিলি মদ উদ্ধার করে। মাদকদ্রব্য সংক্রান্ত একাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য ইয়াবা, গাঁজা ও মদ নিজের কাছে রাখেন। আসামি মামলার ঘটনার সাথে জড়িত বলে জানা যায়।

আসামি একার পক্ষে অ্যাডভোকেট হুমায়ন কবির রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড ও জামিনের উভয় আবেদন নামঞ্জুর করে একাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরও আগে গত ৩১ জুলাই ট্রিপল নাইনে সংবাদ পেয়ে রাজধানীর হাতিরঝিলের উলন এলাকায় বন্ধু নিবাসের নয়তলায় একার অ্যাপার্টমেন্টে অভিযান চালিয়ে আহত অবস্থায় গৃহকর্মী হাজেরা বেগমকে (৩০) উদ্ধার এবং গৃহকর্তী একাকে আটক করে পুলিশ। এ সময় তার বাসা থেকে ইয়াবা, বিদেশি মদ ও গাজা উদ্ধার করা হয়। চিকিৎসার জন্য সন্ধ্যায় হাজেরাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

ঢামেক হাসপাতালে আহত গৃহকর্মীর বরাদ দিয়ে তার স্বামী রিকশাচালক রফিক বলেন, ‘হাজেরা বাসা বাড়িতে ছুটা কাজ করেন। তারা সপরিবারে থাকেন হাতিরঝিলের উলন এলাকায়। তিন মাস ধরে নায়িকা একার বাসায় কাজ করছেন হাজেরা। শনিবার দুপুরে ঘরে থাকা না থাকা নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে নায়িকা একা তার স্ত্রীকে কাজ করতে হবে না বলে জানান।

হাজেরা বলেন, “ঠিক আছে, আমার দুই মাসের বকেয়া বেতন দিয়ে দেন।” এতে রেগে গিয়ে হাজেরাকে ভারী কোনো বস্তু দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন একা। বিষয়টি টের পেয়ে আশপাশের লোকজন পুলিশকে সংবাদ দেয়।

More News...

শাহরুখকে টপকে শীর্ষে দীপিকা, সালমান কত?

‘সোনার চর’ হাউসফুল, উচ্ছ্বসিত জায়েদ খান