পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় ৩ সেনা নিহত

পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় ৩ সেনা নিহত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানে সেনা চেকপোস্টে সন্ত্রাসী হামলায় তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও একজন। হতাহত সবাই পাকিস্তান সেনাসদস্য। আহত সেনাকে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সোমবার সকালে আফগানিস্তান সীমান্তবর্তী উত্তর ওয়াজিরিস্তান অঞ্চলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পরে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে শুরুতে অতর্কিত হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। হামলার সময় তারা ভারী অস্ত্রের ব্যবহার করে। পরে সেনাদের আত্মরক্ষামূলক হামলায় এক সন্ত্রাসী আহত হয়।

উত্তর ওয়াজিরিস্তান অঞ্চলটি পাকিস্তানের সংখ্যালঘু জাতি অধ্যুষিত। যেখানে প্রায়ই সেনাদের ওপর হামলা চালায় পাকিস্তান তালেবান।

এছাড়া গত সপ্তাহে উত্তর ওয়াজিরিস্তান অঞ্চলের দাওয়াতই এলাকায় সন্ত্রাসীদের হামলায় দুইজন পাকিস্তানি সেনা নিহত হয়। আহত হয়েছিল আরও দুই সৈন্য। একই দিনে উত্তর ওয়াজিরিস্তান আরও তিনজন পাকিস্তান সেনা নিহত হয়।

এছাড়া গত ২৪ জুন পাকিস্তানে বেলুচিস্তানে টহলরত সেনাদের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছিল। নিহতরা সবাই সেনাবাহিনীর সদস্য। এ সময় আরও কয়েকজন সেনাসদস্য আহত হয়।

পরে ওই হামলায় নিন্দা জানিয়েছিল, পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ। এটিকে কাপুরুষোচিত হামলা হিসেবেও উল্লেখ করেছিলেন তিনি।

এছাড়া পাকিস্তান মুসলিম লীগ ও বিরোধীদলীয় নেতা সেহবাজ শরীফও এ হামলায় নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বেলুচিস্তানে প্রায়ই এ ধরনের হামলা চালানো হয়ে থাকে। ওই রাজ্যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার তাগিদ দেন তিনি।

এছাড়া গত ২০ জুন পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে জঙ্গি সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান ও সেনাবাহিনীর মধ্যকার সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়। নিহতদের মধ্যে একজন সেনাসদস্য এবং বাকি দু’জন তেহরিক-ই-তালেবানের সদস্য।

এর আগে গত ১৭ জুন বেলুচিস্তানের তুরবত বিমানবন্দরের পাশে সন্ত্রাসীদের হামলায় নায়েক আকিল আব্বাস নামের এক সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। গত ১৪ জুন বেলুচিস্তানে একই ধরনের হামলায় নিহত হয়েছেন পাকিস্তানের চার সেনা সদস্য। এছাড়া গত ৩ জুন রাজধানী ইসলামাবাদে সন্ত্রাসীদের গুলিতে দুই পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন।

More News...

কোন ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল?

৫০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দিয়ে মুক্ত বাংলাদেশি জাহাজ