রিমান্ড দিলে আমি বাঁচব না, আদালতে নাসির

রিমান্ড দিলে আমি বাঁচব না, আদালতে নাসির

নিজস্ব প্রতিবেদক : বয়স ও শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় রিমান্ড আদেশের বিষয়টি পর্যালোচানার জন্য আদালতে আবেদন করেছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার মামলার মূল আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদ।

বুধবার এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম রাজিব হাসান জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠান। আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক কামরুল ইসলাম জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যবসায়ী নাসিরকে হাজির করে তাকে গ্রেপ্তার দেখানোসহ ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন।

শুনানির এক পর্যায়ে আদালতে কথা বলেন আসামি নাসির উদ্দিন। এ সময় তাকে বিষণ্ন দেখায়। তিনি বলেন, ‘স্যার আমার বয়স ৬৫ বছর। আমি অ্যাজমাসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছি। করোনার আগে ৯ দিন আমি হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। আমাকে রিমান্ড দিলে আমি বাঁচব না।’

নাসির আরও বলেন, ‘আমি একজন সমাজসেবক। তাছাড়া আমি উত্তরা ক্লাবের সভাপতি ছিলাম। সাভার বোট ক্লাবের সদস্য। আমি কোনো ঝামেলায় ছিলাম না। কাইন্ডলি আমাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিন।’

মাদক মামলায় গ্রেপ্তার নাসির উদ্দিন মাহমুদের সাত দিনের রিমান্ড শেষ হয় বুধবারই। এরপর তাকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে অভিনেত্রী পরীমণির মামলায় রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জুন রাতে পরীমণি অভিযোগ করেন, চারদিন আগে ৯ জুন উত্তরার বোট ক্লাবে তাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা চালান ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদ ও তার সহযোগীরা।

এ ঘটনায় সাভার থানায় ৬ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন তিনি। পরদিন নাসির উদ্দিন আহমেদ ও অমিসহ ৫ জনকে উত্তরা থেকে আটক করে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা।

More News...

জাতীয় প্রেসক্লাবে বিড়ি শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

শাহরুখকে টপকে শীর্ষে দীপিকা, সালমান কত?