ঢাকার প্রবেশদ্বারে পুলিশের পাহারা

ঢাকার প্রবেশদ্বারে পুলিশের পাহারা

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর আশপাশের সাত জেলায় লকডাউন জারি করায় বিছিন্ন হয়ে পড়েছে ঢাকা। জেলাগুলো থেকে ঢাকার অভিমুখে মহাসড়কগুলোতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। দূরপাল্লার বাস যাতে চলাচল করতে না পারে সেজন্য রাজধানীতে প্রবেশদ্বারে চেকপোস্ট বসিয়ে তদারকি করছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ঢাকার প্রবেশদ্বার বাবুবাজার ব্রিজ ও পোস্তগোলা ব্রিজের দক্ষিণ প্রান্ত মুখে পুলিশের ঢিলেঢালা ভাব পরিলক্ষিত হয়েছে। সকাল থেকে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেস ওয়েতে দক্ষিণ বাংলার কোনো দূরপাল্লার বাস চলাচল করতে দেখা যায়নি।

কেরানীগঞ্জের ঢাকা-মাওয়া সড়কে ধলেশ্বরী (কুচিয়ামোরা) ব্রিজের টোল প্লাজায় হাইওয়ে পুলিশের কঠোর তৎপরতা পরিলক্ষিত হয়। এ সময় সেখানে হাসারা হাইওয়ে পুলিশ চেক পোস্ট বসিয়ে পাহারা দেয়।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশ পরিদর্শক আফজাল হোসেন বলেন, ‘সকাল থেকে আমরা এখানে চেকপোস্ট বসিয়েছি। ঢাকা থেকে দক্ষিণ বাংলার কোনো বাস যেন ঢাকায় প্রবেশ করতে না পারে বা ঢাকা থেকে কোনো যাত্রী পরিবহন দক্ষিণ বাংলায় যেতে না পারে। শুধু পণ্য পরিবহনকারী ও জরুরি সেবায় ব্যবহৃত পরিবহনকে চলাচল করতে দেওেয়া হচ্ছে।’

এদিকে, বাস বন্ধ থাকার কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। বাস বন্ধ থাকার কারণে বিকল্প পথে গন্তব্যে পৌঁছাতে অনেক যাত্রী অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে সিএনজি নিয়ে মাওয়া ঘাটে যেতে দেখা গেছে। বাবুবাজার ব্রিজ পার হওয়ার জন্য সিএনজি পারাপারের জন্য নির্ধারিত ভাড়া ১০ টাকা হলেও সেটা ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা নেওয়ার অভিযোগ করেছে অনেক যাত্রী।

ঢাকা দক্ষিণ ট্রাফিক বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক পিষুশ কুমার মালো বলেন, ‘ঢাকার প্রবেশদ্বার ধলেশ্বরী তুলশীখালী ব্রিজ, বাবুবাজার ব্রিজ ও পোস্তগোলা ব্রিজ এলাকায় আমরা পাহারা বসিয়েছি যেনো কোনো যাত্রীবাহী বাস চলাচল করতে না পারে।’ বাবুবাজার ব্রিজ পারাপারে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয় বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমি অবগত নই তবে অতিরিক্ত ভাড়া নিলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

দাউদকান্দিতে ঢাকামুখী লেনে যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি অংশে ঢাকামুখী লেনে আজ সকাল থেকে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। মহাসড়কের টোলপ্লাজার ২০০ গজ পূর্বে বলদাখাল পয়েন্ট থেকে উপজেলার পুটিয়া পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকে লকডাউন কার্যকর রাখতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি বলদাখাল পয়েন্টে পুলিশ তল্লাশি চৌকি বসিয়েছে। গণপরিবহন থেকে শুরু করে কোনো ধরনের যানবাহন রাজধানী ঢাকায় প্রবেশ করতে না দেওয়ায় এ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে বলে দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহুরুল হক জানান, করোনা প্রতিরোধে সরকারি নিষেধাজ্ঞা আওতামুক্ত যানবাহন ব্যতীত গণপরিবহন থেকে শুরু করে যাত্রীবাহী কোনো যানবাহনই ঢাকায় প্রবেশ করতে না পারে সে লক্ষ্যে মহাসড়কের বলদাখাল পয়েন্টে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়েছে। এতে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করছে।

এর আগে গতকাল সোমবার ঢাকার পাশের সাত জেলা অবরুদ্ধ রাখার কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খোন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। জেলাগুলো হলো মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী ও গোপালগঞ্জ।

More News...

ওবায়দুল কাদেরের মস্তিষ্ক অলস-হৃদয় দুর্বল : রিজভী

ট্রেনে ঢাকায় ফিরছেন অনেকে, স্টেশনে ভিড়