খুলনা বিভাগে করোনায় সর্বোচ্চ রেকর্ড ৩২ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ৯০৩

খুলনা বিভাগে করোনায় সর্বোচ্চ রেকর্ড ৩২ জনের প্রাণহানি, শনাক্ত ৯০৩

বি এম রাকিব হাসান, খুলনা প্রতিনিধি : খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাস ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। কোনোভাবেই থামছে না মৃত্যুর মিছিল। প্রায় প্রতিদিনই ভাঙছে মৃত্যুর রেকর্ড। একদিনে গত ২৪ ঘণ্টায় অদৃশ্য এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিভাগে রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে বিভাগে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৯০৩ জনের।
বুধবার (২৩ জুন) দুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক রাশেদা সুলতানা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে খুলনায় সর্বোচ্ছ আটজন, ঝিনাইদহে সাতজন, চুয়াডাঙ্গায় পাঁচজন, কুষ্টিয়ায় চারজন, যশোরে একজন, বাগেরহাটে তিনজন, সাতক্ষীরায় একজন, নড়াইলে একজন এবং মেহেরপুরে দুইজন মারা গেছেন।
খুলনা বিভাগের মধ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চুয়াডাঙ্গায় গত বছরের ১৯ মার্চ। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৪৭ হাজার ৮৭৮ জন। আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৯৬ জনে। এ সময় সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৫ হাজার ১৭৫ জন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের জেলাভিত্তিক করোনা সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, খুলনায় ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বেচ্ছ মৃত্যু ও শনাক্ত হয়েছে। এ সময় মারা গেছে আটজন এবং শনাক্ত হয়েছে ৩০৫ জন। জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৩ হাজার ৫৬৯ জনের। মারা গেছেন ২২৮ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১০ হাজার ২২৭ জন।
বাগেরহাটে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬০ জনের। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৭৫২ জনের। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭৩ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ৮৪৩ জন।
সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৬০ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৬২ জন এবং মারা গেছে ৬৩ জন। সস্থ্য’ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ১২৭ জন।
যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১২১ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০ হাজার ১৫৯ জনের। এ সময় মারা গেছেন ১১৪ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৬ হাজার ৭৮৯ জন।
২৪ ঘণ্টায় নড়াইলে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১৯ জনের। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৩৭১ জন। মোট মারা গেছেন ৩৬ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ৮৯৪ জন।

মাগুরায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। এ জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৪২১ জনের। এ সময় মারা গেছেন ২৫ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ২২৩ জন।
ঝিনাইদহে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১১৭ জনের। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৬৩৮ জন। এ সময় মারা গেছেন ৭৫ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ৯০২ জন।
২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১২২ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬ হাজার ৬৬২ জন। এ সময় মারা গেছে ১৬৬ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৫ হাজার ১৪৭ জন।
চুয়াডাঙ্গায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৬৪ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৭৯৬ জনের। এ সময় মারা গেছেন ৭৯ জন এবং সুস্থ্য’ হয়েছেন ২ হাজার ২০ জন।
মেহেরপুরে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৩৫ জন। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৪৪৮ জন। আক্রান্ত হয়ে মোট মারা গেছে ৩৭ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ১৩ জন।

More News...

বিড়ির শুল্ক ও অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারের দাবিতে রংপুরে জনসভা

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন