একটি হুইল চেয়ার চান প্যারালাইসিসে পঙ্গুত্ব বরণ করা কানাই 

একটি হুইল চেয়ার চান প্যারালাইসিসে পঙ্গুত্ব বরণ করা কানাই 
ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা কাশিপুর ইউনিয়নের কানাই চন্দ্র বর্মন(৮০)। গৃহস্থলীর কাজে ব্যবহৃত বালতি, হাড়ি পাতিল মেরামতের কাজ করে কোনভাবেই সংসার চালাতেন তিনি। প্রার বছর খানিক আগে হঠাৎ প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে কোমর থেকে পা পর্যন্ত অবশ হয়ে যায়। সেই থেকে পঙ্গুত্ব বরণ করে মানবেতর জীবন-যাপন করছন তিনি।
জানা গেছে, উপজেলার আজোয়াটারী গ্রামের ভাড়ালিটারিতে নীল কমল নদীর তীরে ৫ শতাংশ জমির উপর বাড়ি। নিজ স্ত্রী এক মেয়ে ও চার ছেলেকে নিয়ে সেখানেই থাকেন সহায়সম্বলহীন এই কানাই চন্দ্র বর্মন। মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার পর ছেলেরা যে যার মতো সংসার পেতেছে। ছেলেরাও দিনমজুরের কাজ করে কোনোরকমে দিনাতিপাত করছেন। অসুস্থ বাবার চিকিসায় সাধ্য মতো চেষ্টা করলেও অর্থাভাবে কিছুই করতে পারেনি।
এদিকে পঙ্গুত্ব বরণ করায় উপার্জন ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে কানাই চন্দ্র বর্মন। একদিকে চিকিৎসার জন্য অর্থের জোগান অন্যদিকে দুই স্বামী-স্ত্রীর খাবারের জোগান দেয়া। তাই দু’বেলা দু’মুঠো আহারের জোগান দিতে অন্যের বাড়িতে কাজ করতে হয় তার স্ত্রীকে। অর্থের সংকুলান দিতে না পারায় চিকিৎসা সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে গেছে। অসুস্থ কানাই চন্দ্র বর্মন চলাফেরা করতে না পারায় সারাদিন ঘরে আর বারান্দায় শুয়ে কাটান। সব সময় শুয়ে থাকতে থাকতে পিঠে ঘা হয়ে গেছে তার।
পরিবারের সদস্যরা জানান, পৃথিবীর মুক্ত বাতাস পেতে চান কানাই। সব সময় শুয়ে থাকতে অসহ্য যন্ত্রণা ভোগ করেন তিনি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে বারবার অনুরোধ করেও একটি হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা হয়নি। তাই সরকারসহ সমাজের দানশীল, ও হৃদয়বানদের কাছে একটি হুইল চেয়ার পাওয়ার আকুতি জানিয়েছেন প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে পঙ্গুত্ব বরণ করা কানাই চন্দ্র বর্মন।

More News...

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন

কুষ্টিয়ায় নকল আকিজ বিড়িসহ বিড়ি তৈরির উপকরণ জব্দ