লঞ্চ চলাচল শুরু, ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে করে লঞ্চে উঠছেন যাত্রীরা

লঞ্চ চলাচল শুরু, ঝুঁকি নিয়ে ট্রলারে করে লঞ্চে উঠছেন যাত্রীরা

চাঁদপুর প্রতিনিধি : সরকারি বিধিনিষেধের কারণে বন্ধ থাকার দীর্ঘ ৫০ দিন পরে আবারও শুরু হয়েছে লঞ্চ চলাচল। সোমবার ভোর ৬টায় চাঁদপুর লঞ্চ ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় এমভি রফরফ-৭। সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে ৫টি লঞ্চ এবং চাঁদপুর ঘাটে এসে ভিড়েছে ২টি লঞ্চ।

এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে গত ৫ এপ্রিল থেকে চাঁদপুরসহ সারা দেশে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে সরকার।

এদিকে চাঁদপুর ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া লঞ্চে মাঝ নদীতে ট্রলারে করে ঝুঁকিপূর্ণভাবে যাত্রী তুলতে দেখা যায় কয়েকটি লঞ্চে। বিশেষ করে বিভিন্ন চর থেকে আসা যাত্রীরা ট্রলারে গাদাগাদি করে এসে মধ্য নদীতে চলন্ত লঞ্চে উঠছে। এতে করে যেকোনো সময় ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

সকাল থেকে লঞ্চ ঘাটে যাত্রীদের ভিড় কম দেখা গেলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভিড় বাড়তে থাকে। ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া লঞ্চগুলোতে যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কাজ করে যাচ্ছে বন্দর ও নৌ পুলিশ কর্তৃপক্ষ।

তবে অধিকাংশ লঞ্চে স্বাস্থ্যবিধি মানা হলেও অতিরিক্ত ভাড়া রাখার অভিযোগ করেন যাত্রীরা।

লঞ্চের একাধিক যাত্রী জানান, দীর্ঘদিন পরে লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় আমরা অত্যন্ত খুশি। তবে ভাড়া দ্বিগুণ নেওয়া হচ্ছে। তাছাড়া লঞ্চের ভেতর করোনা প্রতিরোধ ব্যবস্থাও অনেক ভালো। এই উদ্যোগ ঈদের আগে নিলে আমাদের এত দুর্ভোগ হতো না।

চাঁদপুর নৌ থানার ওসি মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা সকাল থেকে ঘাটে কাজ করে যাচ্ছি। যাত্রীরা যেন কোনো প্রকার হয়রানির শিকার না হয় সে ব্যাপারে নজর রাখছি। তা ছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে যাত্রীদের আহ্বান জানাচ্ছি। এখনো পর্যন্ত সকল কিছু সুন্দরভাবে হচ্ছে। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। মধ্য নদীতে ট্রলারে করে যাত্রী না তোলার জন্য আমরা লঞ্চ কর্তৃপক্ষকে নিষেধ করেছি। তা ছাড়া যারা ট্রলারে করে এভাবে যাত্রী তোলে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর উপপরিচালক জেলা বন্দর কর্মকর্তা কায়সারুল আলম বলেন, লঞ্চে যেন ধারণ ক্ষমতার অর্ধেকের বেশি যাত্রী পরিবহন করতে না পারে সে ব্যাপারে নজর রাখা হচ্ছে। তা ছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুখে মাস্ক পরিহিত অবস্থায় যাত্রীদের লঞ্চে ভ্রমণ করার জন্য আমরা মাইকিং করছি।

মধ্য নদীতে নৌকায় করে লঞ্চে যাত্রী ওঠার বিষয়ে তিনি বলেন, বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। এভাবে ঝুঁকি নিয়ে লঞ্চ যাত্রীদের ওঠা কোনোভাবেই ঠিক নয়। এতে করে যে কোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি বন্ধের ব্যাপারে নৌ-পুলিশ ও কোস্টগার্ডের সদস্যদের সহায়তা কামনা করছি।

More News...

৫১ কোটি টাকায় নৌকার মনোনয়ন: ত্রিশালের স্বতন্ত্রপ্রার্থী আনিসের ভিডিও ভাইরাল

আ.লীগের এমপি হতে চান অপু বিশ্বাস