রামগঞ্জে ব্রীকফিল্ডের দেয়াল ধ্বসে তিন মৃত্যু

রামগঞ্জে ব্রীকফিল্ডের দেয়াল ধ্বসে তিন মৃত্যু
সাখাওয়াত হোসেন, রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : রামগঞ্জ উপজেলার দেহলা মদিনা ব্রীকসের ঝূঁকিপূর্ণ দেয়াল ধ্বসে ইটভাটায় কর্মরত শ্রমিকদের পড়ে দুই ভাইসহ ৩ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় ব্রীক ফিল্ড মালিক আমির হোসেন ডিপজলসহ ২জনকে আটক করেছে পুলিশ।
রবিবার দিবাগত সোমবার (২৪ মে) রাত ১২টার দিকে রামগঞ্জ পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু এসপির অফিস থেকে একটি সমঝোতা বৈঠক থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটকৃকতরা হলেন ব্রীক ফিল্ড মালিক আমির হোসেন ডিপজল ও ম্যানেজার মোঃ স্বপন মিয়া।
রামগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র জানান, দূর্ঘটনায় মৃত বেলাল ও ফারুকের মেঝ ভাই হেলাল হোসেন ৩জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। এছাড়া পুলিশ উক্ত ব্রীকফিল্ড সংস্কার বিষয়ে দায়িত্বে অবহেলার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন।
উল্লেখ্য রবিবার বিকাল ৫টায় রামগঞ্জ উপজেলার ভোলাকোট ইউনিয়নের দেহলা গ্রামের মেসার্স মদিনা ব্রীক ফিল্ডে ১৫/২০জন শ্রমিক কাজ করার সময় হটাৎ চুল্লির দেয়াল ভেঙ্গে ধ্বসে পড়ে। দেয়াল চাপায় ঘটনাস্থলেই মারা যায় দুই সহোদর শ্রমিক বেলাল হোসেন ও ফারুক হোসেন। মারাত্মক আহত হয় আরো ১০ জন শ্রমিক। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাকিব হোসেন নামক এক শ্রমিককে লক্ষ্মীপুর সদর হসপিটালে নেয়ার পথে মারা যান। এছাড়াও ৮ জন শ্রমিককে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ‍্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
মৃত বেলাল হোসেন ও ফারুক হোসেন লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চরজগবন্ধু গ্রামের আলতাফ মাঝির ছেলে ও রাকিবের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকেই মালিক আমির হোসেন ডিপজল গা-ডাকা দেয়।
পুলিশ লাশ উদ্ধার করে রামগঞ্জ থানায় নিয়ে আসার পর বেলাল ও ফারুকের ভাই হেলাল হোসেন রাতে রামগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেনের অফিসের ভিতর থেকে একটি সমঝোতা বৈঠক থেকে আমির হোসেন ডিপজল ও ব্রীকফিল্ড ম্যানেজার মোঃ স্বপন মিয়াকে আটক করে।
দেয়াল ধ্বসে নিহত ফারুক ও বেলালের ভাই হেলাল হোসেন জানান, আমার আত্মীয়স্বজনকে চাপ দিয়ে মুছলেখা নিয়েছেন কাউন্সিলর দেলু এসপিসহ কয়েকজন। সেখানে আমার দুই ভাইয়ের মৃত্যুর ঘটনায় ২লক্ষ টাকা ও লাশ দাফনের খরচ ৪০হাজার টাকা দিয়ে আমাদেরকে বাড়ীতে চলে যেতে বলে। আমরা যেন বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করি, তার জন্যও হুমকি দেয়া হয়। তবে তিনি এসময় দাবী করেন, আমাদের অগোচরে মামলাটি ভীন্নখাতে প্রবাহিত করতে ৭লক্ষ টাকায় দফরফা করা হলেও আমাদের আত্মীয়দের কমিশনারের (কাউন্সিলর) অফিস থেকে জোর করে বের করে দেয়।
তবে বিষয়টি অস্বীকার করে ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন দেলু এসপি জানান, ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার কাছে আমির হোসেন মিয়ার স্ত্রী লোকজন নিয়ে আসায় আমি সমাধানের চেষ্টা করি।
রামগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) কার্তিক চন্দ্র জানান, এ ব্যপারে দায়িত্বে অবহেলার বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। মামলার প্রেক্ষিতে ব্রীকফিল্ড মালিক আমির হোসেন ও ম্যানেজার স্বপন মিয়াকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের লক্ষ্মীপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

More News...

বিড়ির শুল্ক প্রত্যাহারসহ চার দাবিতে পাবনায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পাওয়া গেল পৌনে ৮ কোটি টাকা