কুড়িগ্রামে অগ্নিকাণ্ডে ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি 

কুড়িগ্রামে অগ্নিকাণ্ডে ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি 

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নাখারগঞ্জ বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১২টি দোকান ও বাড়িঘর পুড়ে প্রায় ২০ লাখ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, রবিবার (২৩ মে) সন্ধার পূর্বে নাখারগঞ্জ বাজারে একটি জুয়েলারি দোকান থেকে আগুনের শুরু হয়। পরে আশপাশের দোকানগুলোতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে । নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে প্রায় তিন ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ সময় থানা পুলিশ এসে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল ।

জানা গেছে, বাজারের কাস্টম মার্কেটের আরাফাত ট্রেডার্স নামের কীটনাশক ও সারের দোকান, ওবায়দুল ভেটরেনারি, মোরশেদ জুয়েলার্স, পূর্নিমা জুয়েলার্স, গলামাল দোকানসহ, বিকাশের ১২টি দোকান পুড়ে যায়। আশপাশের অনেক দোকানের মালামাল বের করতে নষ্ট হয়ে যায়। মার্কেট সংলগ্ন মার্কেটের মালিক মোস্তাফিজার রহমানের বাড়িও পুড়ে গেছে।

আরাফাত ট্রেডার্সের মালিক আব্দুর রশিদ জানান, কিস্তির টাকায় দোকানের মালামাল করেছেন। ৮ লাখ টাকার মালামাল এনে দোকানে রাখার পরপরই সব পুড়ে গেছে।

মোরশেদ জুয়েলার্সের মালিক আব্দুল লতিফ জানায়, তার ৪ মেয়ে ও ১ ছেলে নিয়ে তাদের সংসার। বড় মেয়ের বিয়ে হয়েছে। তার ছোট মেয়ে লাবনী আক্তার রংপুর প্রাইম মেডিকেলে ফাইনাল ইয়ারে এবং আরেক মেয়ে রোকসানা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩য় বর্ষে পড়েন। ছোট মেয়ে পড়েন নবম শ্রেণিতে। এই দোকানের আয় থেকে চলে তাদের সংসার ও ছেলে মেয়েদের পড়াশোনার খরচ। 

নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ মোঃ লিমন মিয়া বলেন, বিদ্যুৎতিক সট সার্কিটের কারণে আগুনের সুত্রপাত হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে এ অগ্নিকাণ্ডে আনুমানিক ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে।

More News...

বিড়ির শুল্ক ও অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারের দাবিতে রংপুরে জনসভা

বিড়ি শিল্পের শুল্ক প্রত্যাহারসহ পাঁচ দাবিতে বগুড়ায় মানববন্ধন