আন্তর্জাতিক মানের স্বার্থে পাসপোর্টে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ বাদ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক মানের স্বার্থে পাসপোর্টে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ বাদ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : আন্তর্জাতিক মানের স্বার্থে বাংলাদেশের নতুন ই–পাসপোর্টে ইসরায়েলের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। আজ রোববার গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশের পুরোনো পাসপোর্টে লেখা ছিল ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড একসেপ্ট ইসরায়েল।’ অর্থাৎ এই পাসপোর্ট ইসরাইল ছাড়া বিশ্বের সব দেশের ক্ষেত্রে বৈধ। তবে নতুন ই-পাসপোর্টে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ বা ‘ইসরায়েল ছাড়া’ শব্দদ্বয় তুলে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, ‘নতুন ই-পাসপোর্ট থেকে ইসরায়েলের নাম বাদ দেওয়া হলেও দেশটির সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের নীতিগত কোনো পরিবর্তন হয়নি, পররাষ্ট্র নীতির কোনো পরিবর্তন হয়নি। কারণ, বাংলাদেশ এখনো ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয় না।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিষয়টি শোনার পর আমি আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন করি। উনার কাছে জেনেছি, ছয় মাস আগে নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করার পর ‘‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ একসেপ্ট ইসরায়েল’’ থেকে ‘‘একসেপ্ট ইসরায়েল’’ অংশটি বাদ গেছে। এই পরিবর্তন করা হয়েছে পাসপোর্টের আন্তর্জাতিক মানের স্বার্থে।’

পাসপোর্টের পরিবর্তনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের যুক্ততা নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এই পরিবর্তনে ইসরায়েলের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক পরিবর্তনের কিছু নেই। কারণ, আমরা তো ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দিই না।’

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন রোববার বলেন, ‘বাংলাদেশের মধ্যপ্রাচ্য নীতিতে কোনো পরিবর্তন হয়নি। ফিলিস্তিনের প্রতি আমাদের সমর্থন অটুট আছে।’

More News...

জাতীয় প্রেসক্লাবে বিড়ি শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

কৃষকদের টাকা দিলে ফেরত দেয়, কোটিপতিরা দেয় না’