পশ্চিম তীরেও রক্তক্ষয়ী তাণ্ডব

পশ্চিম তীরেও রক্তক্ষয়ী তাণ্ডব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় শনিবার (১৫ মে) সকালেও ইসরায়েল বিমান হামলা চালিয়েছে। গাজা থেকে হামাসও অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েলে রকেট হামলা।

এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও আরব কূটনীতিকরা সংঘাত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। পশ্চিম তীরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে প্রাণ গেছে অন্তত ১১ ফিলিস্তিনির।
খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

গাজায় হামলার প্রতিবাদে ইসরায়েলের দখল করা পশ্চিম তীরে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়। সেখানে ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় ফিলিস্তিনিরা। এতে অন্তত ১১ জন ফিলিস্তিনি নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

গত সোমবার থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় অন্তত ১৩২ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২ শিশু ও ২১ জন নারী। এখন পর্যন্ত ৯৫০ জন আহত হয়েছে।

গাজার উত্তরাঞ্চলে একটি হামলায় চারজনের প্রাণহানি ঘটেছে। স্থানীয়রা রয়টার্সকে জানায়, ভূমধ্যসাগর থেকে ইসরায়েলি নৌ-বাহিনীর জাহাজ থেকেও বোমা ছোড়া হয়েছে। ফিলিস্তিনের ধর্ম মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলি বিমান হামলায় একটি মসজিদ বিধ্বস্ত হয়েছে।

শুক্রবারও সারাদিন গাজায় হামলা চালায় ইসরায়েল। তারা বলছে, কয়েক কিলোমিটারের সুড়ঙ্গ রয়েছে, যেখানে অস্ত্র প্রস্তুত করে হামাস। সেটি ধ্বংস করে রকেট হামলা বন্ধ করতে এ হামলা চালানো হচ্ছে।

অন্যদিকে, গাজা থেকে আসা রকেট হামলার কারণে ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলীয় দু’টি শহরে জরুরি সতর্কতামূলক সাইরেন বাজানো হয়। হামাস এ হামলায় দায় স্বীকার করেছে।

More News...

জাতীয় প্রেসক্লাবে বিড়ি শ্রমিকদের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

কৃষকদের টাকা দিলে ফেরত দেয়, কোটিপতিরা দেয় না’