স্ত্রীর হত্যাকারীদের ৯ লাখ টাকা দেন বাবুল : পিবিআই

স্ত্রীর হত্যাকারীদের ৯ লাখ টাকা দেন বাবুল : পিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাহমুদা আক্তার মিতুর হত্যাকারীদের কয়েক দফায় ‘মোটা অঙ্কের টাকা’ দিয়েছিলেন তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার। এই টাকা ধাপে ধাপে দেওয়া হয়। এর প্রমাণও পাওয়া যাচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার এমনটাই দাবি করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) প্রধান বনজ কুমার মজুমদার।

এরই মধ্যে বাবুলের দুই বন্ধুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে প্রাথমকিভাবে ‘তিন লাখ টাকা’ দেওয়ার কথা উঠে এসেছে। তবে বনজ কুমার বলেন, খুনিদের সাথে বাবুলের লেনদেন হওয়া টাকার পরিমাণ ছয় লাখ থেকে নয় লাখও হতে পারে।

এক প্রশ্নের উত্তরে পিবিআই প্রধান বলেন, টাকা লেনদেনের অকাট্য প্রমাণ এবং ভিডিও ফুটেজে মুছার অবস্থান শনাক্ত হলেও বাবুল আক্তার তাকে চিনতে না পারার বিষয়টি নতুন করে মামলা করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় প্রকাশ্যে গুলি চালিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয় মিতুকে।

এ ঘটনায় পিবিআই বাবুলের সম্পৃক্ততা পাওয়ার কথা জানানোর পর মিতুর বাবা মোশারফ হোসেন গতকাল বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ থানায় নতুন একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা হওয়ার পর বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশের গাড়িতে করে সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তরকে চট্টগ্রামের আদালত ভবনে নেওয়া হয়। আদালত তাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।

More News...

কোন ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল?

তীব্র তাপপ্রবাহ হাসপাতালগুলোতে জরুরি রোগী ছাড়া ভর্তি না করার নির্দেশ